• ২০২২ নভেম্বর ৩০, বুধবার, ১৪২৯ অগ্রহায়ণ ১৬
  • সর্বশেষ আপডেট : ১:৪৮ অপরাহ্ন
  • বেটা ভার্সন
Logo
  • ২০২২ নভেম্বর ৩০, বুধবার, ১৪২৯ অগ্রহায়ণ ১৬

মেসির কণ্ঠে পাঁচ মিনিটের ঝড়ের আক্ষেপ

  • প্রকাশিত ১০:১৩ অপরাহ্ন মঙ্গলবার, নভেম্বর ২২, ২০২২
মেসির কণ্ঠে পাঁচ মিনিটের ঝড়ের আক্ষেপ
সংগৃহীত
নিজস্ব প্রতিবেদক

নিজের পঞ্চম বিশ্বকাপটা জিততেই এসেছেন লিওনেল মেসি। কিন্তু শুরুর দিনই খেয়ে গেলেন ধাক্কা। অভাবনীয়, অচিন্তনীয়, অপ্রত্যাশিত—সৌদি আরবের কাছে আর্জেন্টিনা হেরে গেল ২-১ গোলে।

আর্জেন্টিনা অধিনায়ক ম্যাচ শেষে সেটিই বলেছেন, সৌদি আরবের কাছে হারটা তাঁদের কাছে বড় ধাক্কা। তাঁর দলের খেলোয়াড়েরা এমন পরিস্থিতিতে শেষ কবে পড়েছে, সেটিও ভাবছেন তিনি।

মেসি এ হারকে অপ্রত্যাশিতই মনে করেন, ‘এমন পরিস্থিতিতে আমার দলের খেলোয়াড়েরা কখনো পড়েছে কি না, বলতে পারছি না। এমন ধাক্কা বহুদিন আমরা খাইনি। বিশ্বকাপে এমন শুরু আমাদের প্রত্যাশিত ছিল না।’

সৌদি আরবের কাছে এ হার আর্জেন্টিনার দ্বিতীয় রাউন্ড-যাত্রা কিছুটা অনিশ্চয়তার মধ্যেই ফেলে দিয়েছে। তাদের পরের দুটি ম্যাচ মেক্সিকো ও পোল্যান্ডের বিপক্ষে। যেকোনো বিচারেই সৌদি আরবের চেয়ে মেক্সিকো আর পোল্যান্ড শক্তিধর দল।

নিজের পঞ্চম বিশ্বকাপের শুরুটা অবশ্য দুর্দান্তই ছিল মেসির। খেলা শুরু হতে না হতেই গোল পেয়ে যেতে পারতেন মেসি। কিন্তু তাঁর শট ঠেকিয়ে দেন সৌদি গোলরক্ষক মোহাম্মদ আল ওয়াইস।

নিজের রেকর্ড গোলটি মেসি পেয়ে যান এর পরপরই। আল ওয়াইসকে বোকা বানিয়ে পেনাল্টি থেকে গোল করে মেসি নিজের নামের পাশে লিখে ফেলেন চারটি ভিন্ন বিশ্বকাপে গোল করার কীর্তি। সৌদি আরবের হাই-লাইন ডিফেন্সের কৌশলের ফাঁদে ধরা পড়ে প্রথমার্ধের ২২, ২৮ ও ৩৪ মিনিটে আর্জেন্টিনার তিনটি গোল অফসাইডে বাতিল হয়ে যায় এরপর। তবে আর্জেন্টিনার দুঃস্বপ্নের শুরু দ্বিতীয়ার্ধেই।

মেসির কণ্ঠেও দ্বিতীয়ার্ধেরই হতাশা। সেই সঙ্গে তিনি মনে করেন, আর্জেন্টিনা ম্যাচটি হেরে গেছে পাঁচ মিনিটের ভুলেই। ৪৮ আর ৫৩ মিনিটে সালেহ আল শেহরি আর সালেম আল দাওসারির দুই গোলই শেষ করে দিয়েছে আর্জেন্টিনাকে। মেসি বলেছেন, ‘পাঁচ মিনিটের ভুলে আমরা ম্যাচে ২-১ গোলে পিছিয়ে পড়ি। পরিস্থিতি এরপরই কঠিন হয়ে যায়, আমরা এলোমেলো হয়ে পড়ি।’

সৌদি আরব মেসিকে চমকেই দিয়েছে, ‘আমরা সৌদি আরব সম্পর্কে জানতাম। তবে যা জানতাম, সেটিই আমাদের সমস্যায় ফেলেছে। আমরা জানতাম, সৌদি আরব এমন একটা দল, যারা কেবল তখনই খেলতে পারবে, যখন আমরা তাদের খেলার সুযোগ করে দেব।’

বিশ্বকাপ নিয়ে নিজের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে গ্রুপের শেষ দুটি ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই মেসির। তবে ব্যাপারটা মোটেও সহজ নয় বলেই মনে করেন আর্জেন্টিনা অধিনায়ক, ‘আমাদের এখন দুটি ম্যাচই জিততে হবে। আজকের ম্যাচে যে ভুলগুলো করেছি, সেগুলো শুধরে ফেলতে হবে দ্রুতই। এটা এখন আমাদের দায়িত্ব। মৌলিক বিষয়গুলো ঠিক করতে হবে, সে দলের যে-ই হোক না কেন!’

মেসি শেষ কথাটা বলেছেন তাঁর সমর্থকদের জন্যই। তিনি তাঁদের আশ্বাস দিয়েছেন, তাঁদের মুখে হাসি ফোটাবেনই, ‘এটা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই যে সৌদি আরবের বিপক্ষে এ হার আমাদের জন্য বিরাট ধাক্কা। এটা হজম করাটা খুব কঠিন। তবে আমাদের সমর্থকেরা যেন আমাদের ওপর বিশ্বাস না হারান। তাঁদের অনুধাবন করা উচিত, আর্জেন্টিনা দলটা তাঁদের হতাশ করবে না। আমরা পরের দুটি ম্যাচে জয়ের লক্ষ্যেই ঝাঁপাব। এমন কঠিন ম্যাচ আমরা আগেও খেলেছি, ভালো খেলেছি। এখন আমাদের আগের চেয়ে আরও বেশি করে একতাবদ্ধ থেকে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার সময়।’


সর্বশেষ