• ২০২২ Jul ০৩, রবিবার, ১৪২৯ আষাঢ় ১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:১৪ অপরাহ্ন
  • বেটা ভার্সন
Logo
  • ২০২২ Jul ০৩, রবিবার, ১৪২৯ আষাঢ় ১৯

শিক্ষকের পিটুনিতে গুরুতর আহত হয়ে আইসিইউতে ২ স্কুলছাত্রী

  • প্রকাশিত ১২:২৪ পূর্বাহ্ন রবিবার, Jul ০৩, ২০২২
শিক্ষকের পিটুনিতে গুরুতর আহত হয়ে আইসিইউতে ২ স্কুলছাত্রী
ছবি-সংগৃহীত
নিজস্ব প্রতিবেদক

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে স্কুলের ভেতরে চুমকি নিয়ে খেলা করায় সপ্তম শ্রেণির দুই শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করার অভিযোগ উঠেছে জসিম উদ্দিন নামের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে।

শনিবার দুপুরে উপজেলার বরপা এলাকার হাজী নুরুদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। তানজিলা আক্তার (১৪) ও নিশী চৌধুরী (১৪) নামের দুই শিক্ষার্থী একটি বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউতে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে।

স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার তারাব পৌরসভার বরপা এলাকার হাজী নুরুদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক জসিম মাস্টার এক উগ্র প্রকৃতির মানুষ। তিনি প্রায় সময় শিক্ষার্থীদের বেধড়ক মারধর করে থাকেন। দুই-এক দিনের মধ্যেই স্কুল ঈদের জন্য বন্ধ দেওয়ার কথা। স্কুল বন্ধ হয়ে যাওয়ার খুশিতে শনিবার দুপুরে সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী তানজিলা ও নিশীসহ কয়েকজন শিক্ষার্থী চুমকি দিয়ে খেলা করছিল। চুমকি নিয়ে খেলার বিষয়টি শিক্ষক জসিম উদ্দিন দেখে ক্ষিপ্ত হয়ে তানজিলা ও নিশী আক্তারকে অফিস কক্ষে ডেকে পাঠান। এসময় জসিম উদ্দিন লাঠি দিয়ে দুজনকে বেধড়কভাবে পেটাতে থাকেন। এসময় জসিম উদ্দিন দুই শিক্ষার্থীকে লাথি ও চুলের মুঠি ধরে অমানুষিক নির্যাতন চালান।

পরে দুই শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়লে জসিম উদ্দিন তাদের অভিভাবকদের না জানিয়ে তাদের স্থানীয় ইউএস-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। পরে দুই শিক্ষার্থীর অবস্থার অবনতি হলে জসিম উদ্দিন অভিভাবকদের খবর দেন। পরে অভিভাবকরা হাসপাতালে শিক্ষার্থীদের মুখ থেকে ঘটনার বর্ণনা জানতে পারেন। পরে রাত সাড়ে ৮ টার দিকে তানজিলা ও নিশীর অবস্থা খারাপের দিকে গেলে তাদের হাসপাতালের আইসিইউতে নেওয়া হয়।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শিক্ষক জসিম উদ্দিনের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফএম সায়েদ বলেন, এ ঘটনায় এখনো কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি। ঘটনাটি আমার জানা নেই।

সর্বশেষ