• ২০২২ Jul ০৫, মঙ্গলবার, ১৪২৯ আষাঢ় ২১
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:০৬ অপরাহ্ন
  • বেটা ভার্সন
Logo
  • ২০২২ Jul ০৫, মঙ্গলবার, ১৪২৯ আষাঢ় ২১

দিনাজপুরে আনসার-ভিডিপি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতি অভিযোগ

  • প্রকাশিত ৩:৫০ অপরাহ্ন বুধবার, Jun ২৯, ২০২২
দিনাজপুরে আনসার-ভিডিপি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতি অভিযোগ
ছবি-বেনিউজ২৪
রংপুর ব্যুরো

দিনাজপুরের হাকিমপুর উপজেলা আনসার-ভিডিপি কর্মকর্তা মেহেরুবা আক্তারের অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠেছেন অধস্তন সহকর্মীরাই। ইতোমধ্যে আনসার ভিডিপি'র কমান্ডার, লিডারসহ ৩১ জন সদস্য তার বিরুদ্ধে দিনাজপুর জেলা কমান্ড্যান্ট হাসান আলীর কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

থানা কমান্ডার রিপন বলেন, এর আগেও আমাদের অনেক মহিলা আনসার-ভিডিপি কর্মকর্তা ছিলেন, তারা অনেক ভাল মনের মানুষ ছিলেন। কিন্তু বর্তমান যে অফিসার আছেন তার আচার ব্যবহারে আমরা অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছি। তার অনিয়ম-দুর্নীতির বর্ণনা দিয়ে শেষ করতে পারবো না। অভিযোগে লিখিতভাবে সব তুলে ধরেছি।

হাকিমপুর উপজেলা আনসার ভিডিপি'র কার্যালয়ে যোগদানের পর থেকেই মেহেরুবা আক্তার ঘুষ নেওয়াসহ নানা দুর্নীতি ও অনিয়ম করছেন বলে অভিযোগ করা হয়। তিনি জেলা কমান্ড্যান্টের নাম করে সহকারী থানা কমান্ডার ও অফিস পিয়নের কাছ থেকে টাকা আদায় করেন। লিডার-কমান্ডারদের অফিস খরচ দিতে বাধ্য করেন। কথা না শুনলে মাসিক মিটিংয়ের ভাতা বন্ধসহ চাকরি খেয়ে ফেলার হুমকি দেন। মামলা তদন্তে বাদী-বিবাদীর কাছ থেকে ঘুষ আদায় করেন। ক্লাব-সমিতিগুলোর লভ্যাংশ তিন ভাগ এক ভাগ অফিস খরচ হিসেবে দিতে বলেন। প্রত্যেক আনসার গার্ড থেকে মাসিক চাঁদা ধরেন। ধারের নামেও টাকা আদায় করেন, ধারের টাকা চাইলে বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখান।

অফিসের ইউনিফর্ম শাড়ী, জুতা, প্যান্ট ও ক্যাপ অর্থের বিনিময়ে ভিডিপি সদস্য-সদস্যাসহ অন্যান্য সিভিল লোকজনের কাছে বিক্রি করেন এই মহিলা কর্মকর্তা। অর্থের বিনিময়ে সদস্য-সদস্যাদের বিভিন্ন ডিউটি দিবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন।

এছাড়াও অফিস করেন না ঠিকমতো। তার সার্বিক অত্যাচারে উপজেলা আনসার ভিডিপি'র সদস্য-সদস্যারা অতিষ্ঠ বলেও ঐ লিখিত অভিযোগে বলা হয়েছে।

থানা সহকারী কমান্ডার আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, আমরা গরীব অসহায় মানুষ, সামান্য বেতন পাই। সেই বেতন থেকে স্যারকে ঘুষ দিয়েছি। আমরা ছোট মানুষ প্রতিবাদ করতে পারি না। উনি দিনাজপুর থেকে আসেন, কোন বাড়ি ভাড়া নেননি। সকল সদস্যদের বাড়িতে থেকে বেড়ান, কোন চক্ষু লজ্জা নেই। গরুর গোশত ছাড়া ভাত খান না। আমরা গরীব মানুষ তার চাহিদা পূরণ করতে হিমশিম খাচ্ছি।

ঘুষ-দুর্নীতি ও একাধিক অনিয়মের অভিযোগ বিষয় জানতে চাইলে হাকিমপুর উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা মেহেরুবা আক্তার বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনিত সব অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট। আমি কোন ঘুষ-দুর্নীতির সাথে জড়িত ছিলাম না।

এবিষয়ে দিনাজপুর জেলা কমান্ড্যান্ট হাসান আলী বলেন, হাকিমপুর উপজেলা আনসার ভিডিপি মহিলা কর্মকর্তা মেহেরুবা আক্তারের বিরুদ্ধে ঘুষ-দুর্নীতির লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত চলছে, তদন্ত সাপেক্ষ তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


সর্বশেষ